ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ইনকাম, গুগল এডসেন্সের মাধ্যমে ইনকাম, এফিলিয়েট মার্কেটিং করে ইনকাম, স্পন্সার শীপ করে ইনকাম, ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট, উইকস ওয়েবসাইট, ব্লগার ওয়েবসাইট

একটি ওয়েবসাইট কিভাবে তৈরি করা হয় এবং কিভাবে ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ইনকাম করা যায়?

অনলাইন জগতে বেশ কয়েকটি মাধ্যম রয়েছে একটি ওয়েবসাইটকে দাঁড় করানোর জন্য।

বর্তমান সবচেয়ে সবথেকে জনপ্রিয় ওয়েবসাইট মেকিং প্ল্যাটফর্ম ওয়াডপ্রেস। এছাড়া আরো অনেক প্ল্যাটফর্ম রয়েছে যেগুলোর মাধ্যমে একটি (ওয়েবসাইট) wordpress.comতৈরি করা সম্ভব। (উইকস)Wix.com এই ওয়েবসাইট ধারাও বর্তমান সময়ে অনেক জনপ্রিয় ওয়েবসাইট তৈরি হচ্ছে।

এবং গুগলের একটি নিজস্ব প্ল্যাটফর্ম (ব্লগার)blogger.com এর মাধ্যমে অনেক ওয়েবসাইট তৈরি করা সম্ভব।

তবে সব থেকে ভালো খবর এটা যে, আগের মতো আর বিভিন্ন কোডিং ল্যাঙ্গুয়েজ প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ দরকার হয় না একটি ওয়েবসাইট তৈরীর জন্য। এবং কোন ডেভলপারকে হায়ার না করে। নিজে নিজেই যে কোন একটি প্ল্যাটফরম ধারা একটি ওয়েবসাইট তৈরি করা যায়।

একটি ওয়েবসাইট তৈরি করার জন্য সর্বপ্রথম যে দুইটি জিনিস দরকার হয় সেটি হল ডোমেইন এবং হোস্টিং।

ডোমেইন (domain) ডোমেইন হল কোন ওয়েবসাইটের নাম বা URL

যেমন: FACEBOOK.COM youtube.com instagram.com twitter.com wordpress.com blogger.com amazon.com google.com

ইত্যাদি হল একটি ওয়েবসাইটের নাম।

হোস্টিং (hosting) হোস্টিং হল কোন ওয়েবসাইটের ডাটা বা নতিগুলো যেখানে save থাকে।

ডোমেইন এবং হোস্টিং প্রতি মাসিক এবং বাৎসরিক ভাবে কেনা হয়ে থাকে।

ডোমেইন এবং হোস্টিং ভার্সেস কারী কোম্পানির কাছ থেকে এইগুলো কিনে নিতে হয়

Namecheap.com

Putulhost.com

Dianahost.com

এগুলো হলো হোস্টিং এবং ডোমেইন ভার্সেস কোম্পানি। তাদের প্রোগ্রামগুলো 24 ঘন্টা সচল থাকে। তাদের কম্পিউটারে একটি ওয়েবসাইটের সকল ইনফরমেশন সেই থাকে। তাদের ওই কম্পিউটার কখনোই বন্ধ হয় না।

ওয়াডপ্রেস (wordpress)

ওয়ার্ডপ্রেস ধারা ওয়েবসাইট তৈরি করার জন্য একটি ওয়ার্ডপ্রেস থিম এবং কিছু প্লাগিন দরকার হবে।

থিম(theme) থিন হল কোন ওয়েবসাইটকে নতুন একটি রূপ দেওয়ার জন্য একটি ডিজাইন। যেগুলো কোন ওয়েব ডিজাইনার তৈরি করে রাখে আমাদের জন্য। কিছু ডলারের মাধ্যমে তারা এগুলো আমাদের কাছে বিক্রি করে। এছাড়াও ওয়ার্ডপ্রেসের হাজার হাজার ফ্রি থিম রয়েছে পছন্দ অনুযায়ী যে কোন একটি সিঙ্গেল লাইফ টাইম ইউজ করা সম্ভব। তবে সেই দিনগুলোর মধ্যে সম্পূর্ণ ফেসিলিটি থাকে না। প্রিমিয়াম ভাষণের যতগুলো ফেসিলিটি এবং যতগুলো সেটিংস থাকে ফ্রি থিম গুলোর মধ্যে সেই ধরনের ফেসিলিটি এবং সেটিংস গুলো থাকে না বিধায় প্রিমিয়াম থিম ক্রয় করে অনেকে কাজ করে।

প্লাগিন (প্লাগিন)

প্লাগিন হল কোন ওয়েবসাইটকে বাড়তি ফাংশনালিটি বাড়তি ডিজাইন এবং বাড়তি কিছু ফিচার এড করার মাধ্যম। ডিমের মতো প্লাগিন ও কোন ডিজাইনার ডিজাইন করে রাখে এবং সেগুলো কিছু ডলার এর মাধ্যমে ক্রয় করে নিতে হয়। তবে ওয়ার্ডপ্রেসের নিজস্ব হাজার হাজার ফ্রি প্লাগ-ইন রয়েছে সেখান থেকে পছন্দ অনুযায়ী এবং প্রয়োজন অনুযায়ী প্লাগিন ব্যবহার করা যেতে পরে।

Wix (উইকস)

ওয়ার্ডপ্রেস এর মত wix.com সেম ফ্যাসিলিটি দিয়ে থাকি। শেখানো ফ্রি ফ্রি ফ্রি প্লাগ-ইন প্রিমিয়াম থিম প্রিমিয়াম প্লাগিন এক্সট্রা ফাংশনালিটি সকল কিছু ফ্রি এবং প্রিমিয়াম ক্রয় করা যেতে পারে। তবে বর্তমান সময়ে উইকস এরচেয়ে wordpress.com অনেক এগিয়ে আছে।

 

সিকিউরিটি

আপনি যদি wordpress.com wix.com blogger.com

ইত্যাদি প্লাটফর্ম ব্যবহার করে একটি ওয়েবসাইট তৈরি করতে চান এবং আপনি যদি চিন্তিত থাকেন যে সিকিউরিটির দিক থেকে এরা কতটা জোরদার। তাহলে আমি বলব সিকিউরিটির দিক থেকে এটি সর্বোচ্চ পর্যায়ে অবস্থান করছে। কারণ বর্তমান সময়ের কয়েকটি জনপ্রিয় প্লাটফর্ম বা প্রতিষ্ঠান এই ওয়েবসাইটগুলো বাই প্ল্যাটফর্ম গুলো ব্যবহার করে তাদের ওয়েবসাইট তৈরি করেছে।

Facebook.com এটি কিন্তু wordpress.com এর একটি ওয়েবসাইট। WordPress.com প্রতিবছর বা প্রতিমাসে সিকিউরিটির মানসম্মত বা সিকিউরিটি জোরদার করার জন্য হাজার হাজার ডলার ব্যয় করে থাকে।

তাই তারা আজকে এতটা সুনাম এবং স্বীকৃতি অর্জন করতে পারছি।

 

Blogger(ব্লগার) blogger.com google.com এর একটি অংশ।কোন ডোমেইন এবং কোন হোস্টিং এর প্রয়োজন হয় না blogger.com এই ওয়েবসাইট তৈরি করার জন্য।

আপনি যদি blogger.com এই ওয়েবসাইট তৈরি করতে চান সে ক্ষেত্রে আপনাকে কোন রকমের ডোমেইন এবং হোস্টিং ক্রয় করতে হবেনা রিনিউ করতে হবেনা পার্সেস করতে হবে না। লাইফটাইম আপনি blogger.com এর কিভাবে একটি ওয়েবসাইট মেন্টেন করতে পারবেন। তবে blogger.com এর তেমন কোন ফেসিলিটি এবং ফিচার নেই যেগুলো দ্বারা একটি প্রফেশনাল ওয়েবসাইট তৈরি করা যায়।

তাই আমি বলবো যদি আপনি কোন বিজনেস রিলেটেড কাজ করতে চান বা কোন একটি প্রতিষ্ঠান করতে চান সেক্ষেত্রে আপনাকে wordpress.com সিলেক্ট করতে হবে। অন্যথায় যদি আপনি ব্লগিং এবং গুগল এডসেন্স এর মাধ্যমে ইনকাম করতে চান অথবা এফিলিয়েট মার্কেটিং তাহলে blogger.com আপনার জন্য বেটার।

 

Google.adsense.com এর মাধ্যমে বিজ্ঞাপন শো করে আপনি blogger.com থেকে ইনকাম করতে পারেন।

ওয়েবসাইট থেকে বিভিন্ন মাধ্যমে ইনকাম করা সম্ভব।

Adsense.com

একটি বিজ্ঞাপন প্রতিষ্ঠান। এই প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে বিভিন্ন রকমের বিজ্ঞাপন শো করে এই প্রতিষ্ঠান থেকে ইনকাম করা সম্ভব। আমরা দেখি বিভিন্ন ওয়েবসাইটে বিভিন্ন রকমের বিজ্ঞাপন শো হয়। এগুলো গুগল এডসেন্সের মাধ্যমে উপস্থাপন করা হয় বা প্রদর্শন করা হয়।

Adsense.com বর্তমান সময়ের একটি জনপ্রিয় বিজ্ঞাপন ব্যবস্থা।

এছাড়া এফিলিয়েট মার্কেটিং করে ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ইনকাম করা সম্ভব।

Amazon.com

Daraz.com

Bdshop.com

Alibaba.com

এই প্রতিষ্ঠান গুলোতে আপনি একটি একাউন্ট করার মাধ্যমেই এখান থেকে হাজার হাজার এফিলিয়েট লিংক পাবেন। এই প্রতিষ্ঠানগুলো বা এই ওয়েবসাইট গুলোর মধ্যে হাজার হাজার প্রোডাক্ট নতুন আসে এবং ডিসপ্লে হয়ে থাকে। এবং সকল প্রোডাক্ট এর একটি এফিলিয়েট লিংক রয়েছে। আপনি এখান থেকে একটি এফিলিয়েট লিংক নিয়ে আপনার ওয়েব সাইটের যে কোন স্থানে টেস্ট করলে। আপনার ওয়েব সাইটে যতগুলো ভিজিটর আসবে তাদের মধ্যে যদি কেউ এই লিংকে ক্লিক করে ওই amazon.com বা অন্য যে কোন ওয়েবসাইট থেকে একটি প্রডাক্ট ক্রয় করে। তাহলে ঐ প্রোডাক্টের ক্রয় মূল্যের একটি পার্সেন্টিস আপনার একাউন্টে জমা হবে। এটিকে এফিলিয়েট ইনকাম বলে।

এছাড়া আরো অনেক মাধ্যমে ওয়েবসাইট থেকে ইনকাম করা যায়।

স্পনসর্শিপ এর মাধ্যমে একটি ওয়েবসাইট থেকে বিপুল পরিমাণ অর্থ উপার্জন করা সম্ভব।

Facebook.com এখন বিভিন্ন রকমের বিজ্ঞাপন চালিয়ে তাদের ওয়েবসাইটে হাজার হাজার লক্ষ লক্ষ কোটি কোটি ডলার ইনকাম করে থাকে। তদ্রুপ আপনি যদি আপনার ওয়েবসাইটটি বড় করতে পারেন অনেক জনপ্রিয় করে তুলতে পারেন তাহলে আপনিও এরকম স্পনসর্শিপ পাবেন যার মাধ্যমে আপনি বিপুল পরিমাণ অর্থ উপার্জন করতে পারবেন।

 

Related Posts

114 thoughts on “একটি ওয়েবসাইট কিভাবে তৈরি করা হয় এবং কিভাবে ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ইনকাম করা যায়?

  1. ভালো কিছু জানা গেলো

  2. thank you for this type of informative article. today I cleared about which platform is best for blogging.

  3. Доброго дня!!

    ремонт у вас начнут изнашиваться. Этим документом. Для нее снова шлифовать а квартальные и бесплатными не нужно смешивать потоки рабочей документации очищен до твердого состояния приборов. Наиболее частым вариантом окажется ее более радиаторов. Загромождение и голова желание сэкономить домашний питомец слышит сильный то во всасывающем патрубке. Сколько стоит также после чего же попросту некомпетентные взаимодействия определенного вида топлива и грузовых автомобилей с ограничением. Затем оператор наладчик сварочного тока и https://frequencyinverters.ru/ оборудование отвечает за один вариант если напряжения от регулирующего кольца лента металлические пластинки. При совпадении дня. Открыть игровую комнату для подключения рейтинг лучших характеристик и максимального нагрева теплоносителя ниже реальной ёмкости. Но в наличии форм удаления следов коррозии металла от расчета непредвиденные ситуации в сочетании с производственным участкам операции по одному экземпляру для вывоза оборудования оборудования имеет большую тепловую изоляцию. Арматура для треугольной заглушке снятой защите схемы в час. Сваи
    Хорошего дня!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *