আয় কত প্রকার-ইনকাম কত প্রকার ও কি কি?

আয় কত প্রকার-ইনকাম কত প্রকার ও কি কি?

আয় কত প্রকার-ইনকাম কত প্রকার ও কি কি?আয় কত প্রকার -ইনকাম শব্দটি আমরা সবাই জানি কারণ এটি আমাদের জীবনের একটি প্রধান অবলম্বন। এইটাম অনেক ধরনের হতে পারে ইনকাম এর সঠিক কোন পদ্ধতি নেই যে কোন পদ্ধতি ব্যবহার করে ইনকাম করা যেতে পারে। ইনকাম করার বিভিন্ন রকমের পদ্ধতি বিভিন্ন রকমের উপায় বৃদ্ধমান রয়েছে যেকোনো একজন ব্যক্তি যে কোন বিষয়ের উপর অভিজ্ঞতা অর্জন করে ওই বিষয়ে থেকে পর্যাপ্ত পরিমাণ পরিমাণ মুনাফা অর্জন করতে পারে সেটাই ইনকাম।

 

 

আজকে আমরা কথা বলবো ইনকাম কত প্রকার ও কি কি?

ইনকাম দুই প্রকার।

১) অ্যাক্টিভ ইনকাম

২) প্যাসিভ ইনকাম

অ্যাক্টিভ ইনকাম কি/অ্যাক্টিভ ইনকাম কাকে বলে বা কিভাবে করে?আয় কত প্রকার

 

ধরুন আপনি কোন একটি দোকানে কাজ করেন দিন শেষে আপনাকে যে মজুরি টা দেওয়া হয় বা মুনাফা দেওয়া হয় সেটাই অ্যাক্টিভ ইনকাম।

চলুন বিষয়টা আরেকটু সংজ্ঞায়িত করে বিস্তারিত আলোচনা করা যাক।

ধরুন আপনি একজন কৃষক অথবা ধরুন আপনি একজন ড্রাইভার অন্যের গাড়ি ড্রাইভিং করে থাকেন অথবা ধরুন আপনি কোন গার্মেন্টস শিল্প কারখানা অথবা কোন কোম্পানির ম্যানেজার সুপারভাইজার এবং বস। আপনার কর্মস্থল বা কাজের ধারণটা বিভিন্ন রকমের হতে পারে। দিন শেষে অর্থাৎ একটি সময় একটি নির্দিষ্ট সময় পরে আপনাকে আপনার কাজের সঠিক এবং সমপরিমাণ মুনাফা দেওয়া হয় সেটাই একটি ইনকাম।

অ্যাক্টিভ ইনকামের বাস্তব ধারণা:আয় কত প্রকার

দিনমজুর: আপনি একজন দিনমজুর কিছুক্ষণের জন্য ধরে নিলাম আপনি কাজ করতেছেন অনলাইনে দিন শেষে আপনাকে যে মজুরি বা সমপরিমাণ পাওনা দেওয়া হয় বা পারিশ্রমিক দেওয়া হয় সেটাই অ্যাক্টিভ ইনকাম।

 

প্যাসিভ ইনকাম কি/প্যাসিভ ইনকাম কাকে বলে কিভাবে করে?

প্যাসিভ ইনকাম: ধরুন আপনার একটি ওয়েবসাইট রয়েছে অথবা ধরুন আপনার একটি ইউটিউব চ্যানেল রয়েছে অথবা ধরুন আপনার একটি অনলাইন শপিং প্লাটফর্ম রয়েছে। আপনি যদি একটি আর্টিকেল পাবলিস্ট করেন আপনার ওয়েবসাইটে অথবা আপনার ইউটিউব চ্যানেলের যদি একটি ভিডিও আপলোড করেন অথবা আপনি যদি কোন প্রোডাক্টের রিভিউ আপনার ওয়েবসাইটে আপলোড করেন সেটা কিন্তু লাইফটাইম ইন্টারনেটে স্বচ্ছল অবস্থায় থাকবে। যেকোনো সময় যেকোনো পরিস্থিতিতে যে কোনো কেউ সার্চ করে আপনার ওয়েবসাইটে বই আর্টিকেল অথবা আপনার ইউটিউব চ্যানেলের বই ভিডিও অথবা আপনার ওয়েবসাইটে ওই প্রোডাক্টের রিভিউ দেখে পড়ে এবং শিক্ষার মাধ্যমে আপনার ইনকাম জেনারেট হবে। গুগল এডসেন্স গুগল এডমোব স্পন্সার বোনাস ইত্যাদি অনলাইনে ইনকাম করা সম্ভব।

উপরে উল্লেখিত ইনকাম পদ্ধতি হল প্যাসিভ ইনকাম।

প্যাসিভ ইনকাম করার জন্য সব সময় আপনাকে একটি না থেকেও 24 ঘন্টা ইনকাম জেনারেট করা সম্ভব। আপনি কাজের মধ্যে সক্রিয় না থাকা সত্ত্বেও আপনার ইনকাম এর কোন অংশ কমতি বা বিলুপ্ত হবে না।

 

বিভিন্ন মাধ্যমে প্যাসিভ ইনকাম করা যেতে পারে:আয় কত প্রকার

ওয়েবসাইট থেকে ইনকাম: অনলাইন জগতে আপনি কোন কিছু সার্চ করলে বা আপনার প্রয়োজনের তাগিদে কোন কিছু খোঁজার ক্ষেত্রে উত্তর বা সাজেশন হিসেবে যেই note বা দরখস্ত গুলো আপনার সামনে উপস্থাপিত হয় সেগুলো একটি ওয়েবসাইটের মাধ্যমে উপস্থাপন করা হয়। এবং আপনি যেখান থেকে সার্চ করছেন সেই সার্চ করার মাধ্যম তাকে একটি সার্চ ইঞ্জিন বলা হয়। তবে সেটাও একটি ওয়েবসাইট।

 

অনলাইন জগতে বেশকিছু ধরনের ওয়েবসাইট রয়েছে:আয় কত প্রকার 

সোশ্যাল মিডিয়া ওয়েবসাইট: অনলাইনে সোশ্যাল মিডিয়া ওয়েবসাইট রয়েছে যেখানে আপনি একে অপরের সাথে সমঝোতা বন্ধন শেয়ারিং এর মাধ্যমে নিজেদের সাথে কনভারসেশন করতে পারেন। এগুলোকে বলা হয় সোশ্যাল মিডিয়া ওয়েবসাইট

যেমন

১) facebook.com

২) instagram.com

৩) twitter.com

৪) linkedin.com

উপরে উল্লেখিত ওয়েবসাইটগুলো প্রতিটা সোশ্যাল মিডিয়া ওয়েবসাইট হিসেবে বিবেচিত।

আরনিং ওয়েবসাইট: অনলাইন থেকে আরনিং করার জন্য বিভিন্ন রকমের ওয়েবসাইট রয়েছে যেগুলোর মাধ্যমে অনলাইন থেকে অর্থ উপার্জন করা সম্ভব।

যেমন

১) youtube.com

২) facebook.com

৩) instagram.com

 

ওয়েবসাইট তৈরি করা প্ল্যাটফর্ম:

আপনি একটা কথা শুনলে অবাক হবেন একটি ওয়েবসাইট তৈরি করার পরে, ওই ওয়েবসাইটের মধ্যে আবার হাজার হাজার লক্ষ লক্ষ মিলিয়ন ওয়েবসাইট তৈরি করা সম্ভব। সে গুলোকে বলা হয় ওয়েবসাইট মেকিং প্লাটফর্ম বা ওয়েবসাইট তৈরি করার প্ল্যাটফর্ম।

যেমন

১) wordpress.com

২)wix.com

সার্চ ইঞ্জিন website:

অনলাইন জগতে কোন কিছু খুঁজে নেওয়ার জন্য বা সার্চ করার জন্য এই মাধ্যমটি ব্যবহার করা একান্ত প্রয়োজনীয় বা এটা ছাড়া কখনোই সম্ভব না কোন কিছু সার্চ করা সেটি হল সার্চ ইঞ্জিন।

যেমন

১) google.com

২) yahoo.com

৩) bing.com

ইত্যাদি।

Note: অনলাইন জগতে আরো হাজারো ক্যাটাগরির হাজারো ওয়েবসাইট রয়েছে যেগুলোর কাজ একেক রকমের। অনলাইন একটি বিজ্ঞান এর ভাণ্ডার এখানে বিজ্ঞানসম্মত হাজার হাজার প্রশ্ন উত্তর পাওয়া যায় এবং প্রশ্ন-উত্তর দিয়ে সহযোগিতা করা হয়। আসলে অনলাইন জগত সম্পর্কে কেউ সম্পূর্ণ জ্ঞান অর্জন করতে পারে না বা এটা কখনো সম্ভব নয়। অনলাইনের জ্ঞান অসীম এটা কখনো কোন মানুষের পক্ষে সর্বোচ্চ শক্তি দিয়ে সবটুকু জ্ঞান অর্জন করা একেবারেই অসম্ভব।

 

 

 

 

সর্বোপরি এটাই বলা যায় যে ইনকাম দুই ধরনের । অ্যাক্টিভ ইনকাম ও প্যাসিভ ইনকাম। অ্যাক্টিভ ইনকাম কিভাবে ব্যবহার করা হয়। প্যাসিভ ইনকাম কিভাবে করা হয়। এবং এই সম্পর্কে বিস্তারিত আলোকপাত করা হয়েছে। যদি সম্পূর্ণ বিবরণ এর মধ্যে ভুলক্রমে কোন রকমের ভুল-ভ্রান্তি হয়ে থাকে তাহলে অবশ্যই ক্ষমার দৃষ্টিতে দেখবেন। এবং আপনাদের যদি এই আর্টিকেলটি ভালো লেগে থাকে বা উপকারে আসে তাহলে অবশ্যই কমেন্টের মাধ্যমে আমাদের ইন্সপায়ার করবেন।

ধন্যবাদ।

 

 

Related Posts

3 thoughts on “আয় কত প্রকার-ইনকাম কত প্রকার ও কি কি?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *